টেসলার মার্কিন কারখানা বন্ধ থাকছে না

অবস্থা চলাকালীনও নিজেদের ক্যালিফোর্নিয়া কোভিড-১৯, নভেল করোনাভাইরাস মহামারীকে ঘিরে জরুরি  অঞ্চলের কারখানা বন্ধ করছে না টেসলা।

র বিস্তার কার্যালয় রোধে , কর্মীদের বাসা যখন বড় প্রযুক্তি করোনাভাইরাসে প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের  বন্ধ রাখছেথেকে কাজ করার বিষয়টিকে সে সময়টিতে স্রোতের  বাধ্যতামূলক করছে, সে সময়টিতে স্রোতের বিপরীতে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন টেসলা প্রধান ইলন মাস্ক। করোনামূর্খামি” ভাইরাস আতঙ্ককে “ আখ্যা দিয়ে এর আগে টুইটও করেছেন তিনি।

সোমবার জানিয়েছে লস অ্যাঞ্জেল  বিষয়টি সম্পর্কে স টাইমস। ক্যালিফোর্নিয়ার বিদ্যুতচালিত গাড়িত  টেসলারসংযোজন করার কাজ করে থাকে।  উদ্দেশ্যে সোমবার এক কারখানার কর্মীদের ইমেইলে মাস্ক লিখেছেন, “ পরিমাণও অসুস্থ বোধ করেন আপনি যদি সামান্য  বা অস্বস্তি বোধ তাহলে কাজে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই আসার ব্যাপারে ।”–  সাইট সিনেটের।

সোমবার বে এরিয়ার ছয়টি খবর প্রযুক্তিবিষয়ক ওই কারখানাটি মূলত  ফ্রেমন্টে অবস্থি বন্ধ রাখার মেয়াদ বাড়ানো সকালেই স্যান বিস্তার রোধে সব ধরনের ব্যবসা ফ্রান্সিসকো  কাউন্টি করোনাভাইরাস  প্রতিষ্ঠান বন্ধ । বা সেবা ছাড়া সব বন্ধ থাকবে  এপ্রিলের ৭ তারিখ পর্যন্ত। পরবর্তীতে ন না মাস্ক। টেসলা প্রধানের মতে, “ অবস্থা জরুরি ব্যবসা বুঝে  যদি কাজে চিন্তিত বা কমানো হতে পারে। – প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে সিনেট।

কিন্তু বিষয়টিকে মোটেও ইমেইলে আশ্বস্তও পাত্তা আমি মনে করি  দিচ্ছেআতঙ্ক” সবচেয়ে বড় বিপদ। এ বিষয়ে মাস্ক লিখেছেন, “করোনাভাইরাস চেয়েও বেশি ছড়িয়েছে আতঙ্ক ভাইরাসটির । ব্যক্তিগতভাবে আমি কাজে থাকব, এটি শুধুই আমার কথা।”

কর্মীদেরকে  করেছেন মাস্ক। থাকার পনি   থেকে দুঃশ্চিন্তামুক্ত থাকেন, চেয়ে বাড়িতে তিনি লিখেছেন, “আতাহলে আমিও সেটাই করতাম।”

বিষয়টি কোনো মন্তব্য নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে করেননি টেসলা প্রতিনিধিরা।

We will be happy to hear your thoughts

      Leave a reply

      Register New Account
      Reset Password
      Compare items
      • Total (0)
      Compare